counter ২০২১ সালে ২০ শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কারখানা নির্মাণ হবে

মঙ্গলবার, ২০শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

২০২১ সালে ২০ শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কারখানা নির্মাণ হবে

  • 10
    Shares

ডেস্ক নিউজ : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর ক্রমশ দৃশ্যমান হতে শুরু করেছে। ২০২১ সালে ২০ শিল্পপ্রতিষ্ঠান কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করবে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ ইকোনমিক জোন অথরিটি (বেজা)। ইতিমধ্যে ১১ শিল্পপ্রতিষ্ঠান নির্মাণকাজ শুরু করেছে। এদের মধ্যে এশিয়ান পেইন্ট ও বসুন্ধরা গ্রুপ উল্লেখযোগ্য। এশিয়ান পেইন্ট ২০ একর ও বসুন্ধরা ৫০০ একর জমিতে কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করেছে। বেজা সূত্রে জানা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর উন্নয়নে ১৭ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর হবে স্মার্ট সিটি। পণ্য আমদানি-রফতানির জন্য এখানে একটি সমুদ্রবন্দর নির্মাণ করা হবে। এ ছাড়া সোনাগাজী অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিমানবন্দর নির্মাণ করা হবে। মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে দুটি শিল্পপ্রতিষ্ঠান নির্মাণের কাজ শেষ হয়েছে। এগুলো যে কোনো সময় প্রধানমন্ত্রী উদ্বোধন করবেন।

২৫ কিলোমিটার সড়ক উন্নীতকরণের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এগুলোর মধ্যে বেজা করছে ১৫ কিলোমিটার ও সড়কও জনপথ বিভাগ করছে ১০ কিলোমিটার। ১৮টি কালভার্ট নির্মাণের কাজ শেষ করেছে বেজা। এ ছাড়া ৫১, ৫৭ ও ২৫ মিটারের তিনটি ব্রিজ নির্মাণকাজ শেষ করেছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ। শেষ হয়েছে দাফতরিক অবকাঠামো নির্মাণ ও পাওয়ার প্ল্যান্ট নির্মাণকাজ। যে কোনো শিল্পপ্রতিষ্ঠান চাইলে গ্যাস সরবরাহ করতে পারবে। আরও জানা গেছে, সাতটি স্লুইসগেটের মধ্যে ছয়টির কাজ সম্পন্ন হয়েছে। ইতিমধ্যে ১১ শিল্পপ্রতিষ্ঠান তাদের কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করেছে।

২০২১ সালে আরও ২০ শিল্পপ্রতিষ্ঠান কারখানা নির্মাণকাজ শুরু করবে। এ ছাড়া গত ১৯ জুলাই বিশ্বব্যাংকের বোর্ডসভায় ৫০ কোটি ডলারের একটি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে বিশ্বব্যাংক, যা দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে নতুন করে আরও সড়ক নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়নকাজে ব্যয় করা হবে। এ বিষয়ে এসবিজি ইকোনমিক জোনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাহবুবুর রহমান রুহেল বলেন, বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেয়ার দিন শেষ। বিশ্বের উন্নত রাষ্ট্রগুলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশকে খুঁজছে। কারণ তারা জানে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে তাদের বিনিয়োগ বিফলে যাবে না।

বেজার সহকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, কোন শিল্পপ্রতিষ্ঠান চাইলে গ্যাস সরবরাহ করে কারখানায় উৎপাদন কাজ শুরু করতে পারবে। ইতিমধ্যে জিং জিয়াং ও পাওয়ার প্ল্যান্ট গ্যাস সরবরাহ করেছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগর এখনও পুরোপুরি দৃশ্যমান। নতুন নতুন বিনিয়োগ আসছে।বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী জানান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরে ১৫ বিলিয়ন ডলারের বেশি বিনিয়োগ প্রস্তাব এসেছে। সর্বশেষ চীনের ইয়াবাং গ্রুপ ১০০ একর জমির ইজারা চুক্তি করেছে। এতে তারা প্রায় ৯ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করবে। এ ছাড়া ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের জন্য অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় তৃতীয় এলওসির আওতায় ১১৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ দিচ্ছে ভারত।

এই বিভাগের আরো খবর