counter সৃষ্টিকর্তার প্রতি করোনা আক্রান্ত নরসিংদী প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদকের আকুতি

বৃহস্পতিবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ৯ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সৃষ্টিকর্তার প্রতি করোনা আক্রান্ত নরসিংদী প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদকের আকুতি

  • 207
    Shares

মোঃ সালাহউদ্দিন আহমেদঃ  করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় অগ্রণী ভুমিকা পালনকারী নির্ভিক সাংবাদিক নরসিংদী প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও বাংলাভিশনের জেলা প্রতিনিধি মোঃ মাজহারুল পারভেজ করোনায় আক্রান্ত।শুরু থেকেই মানুষকে সচেতন করতে সচেতনতা মূলক সংবাদ প্রচারে ব্যাস্ত আবার কখনো জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে সচেতনতা মূলক লিফলেট বিতরন বা ক্যাম্পেইনে ব্যাস্ত সময় কাটিয়েছেন। পরবরর্তীতে দরিদ্র মানুষদের ঘরে ঘরে খাবার নিয়ে ছুটছেন এই সাহসী করোনা যোদ্ধা।
করোনা ভাইরাসের কবল থেকে মানুষকে রক্ষা করার প্রাণান্ত প্রচেষ্টায় লিপ্ত থেকে আজ নিজেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে রুম কোয়ারেনটাইেনে আছেন সকলের প্রিয় এই সাংবাদিক নেতা করোনা যোদ্ধা মোঃ মাজহারুল পারভেজ। সাধারন সম্পাদক ও কোষাধ্যক্ষসহ ৪ সাংবাদিক করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে চিকিৎসা সেবা নিয়ে দুই জন সুস্থ হয়ে উঠলেও সাধারন সম্পাদক ও প্রবীন সাংবাদিক বাদল কুমার সাহা এখনো রুম কোয়ারেনটাইনে আছেন। জেলা স্ব্যাস্থ বিভাগের সূত্রমতে, চলতি বছরের ৬ এপ্রিল নারায়নগঞ্জ ফেরত এক গার্মেন্টসের মসজিদের ইমাম মুফতি শামীম মিয়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়। এখবর ছড়িয়ে পড়ার পর পরই পলাশ উপজেলা প্রশাসন ডাঙ্গা ইউনিয়নের ইসলামপাড়া এলাকার সব দোকান বন্ধ করে ইসলামপাড়া এলাকা লকডাউন করে দেয়। এরই মধ্যে বাড়তে থাকে করোনা ভাইসে আক্রান্তের সংখ্যা। যা এরই মধ্যে বেড়ে দাড়িয়েছেন ১৬৯৫ জন। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছেন সদর উপজেলায় ১০৩৬ জন। পরে ক্রমান্বয়ে শিবপুরে ১৬৮ জন,পলাশে ১৩৯ জন, মনোহরদীতে ১১৪ জন, বেলাবোতে ১০৯ জন ও রায়পুরাতে ১২৯ জন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে এ পযর্ন্ত মারা গেছেন ৩৯ জন। এর মধ্যে সদরে ২৩ ,পলাশ ০২, বেলাব ০৬ , রায়পুরা ০৫, মনোহরদী ০২, শিবপুর ০১ জন। আইসোলেশনমুক্ত হয়েছেন ১৪৬৩ জন। এখনো হোম আইসোলেশনে ১৮৯ জন। হাসপাতাল আইসোলেশনে আছেন ০৪ জন। করোনা মোকাবেলায় দীর্ঘ সাড়ে চার মাস অবিরাম ছুটে চলেছেন সাংবাদিক নেতা মোঃ মাজহারুল পারভেজ । জেলার সর্বস্তরের মানুষকে ভালো রাখতে আপ্রান চেষ্টা চালিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি সার্বক্ষনিক খোঁজ রেখেছেন জেলার অন্যান্য সাংবাদিকদ ও তাদের পরিবার পরিজনের। সর্বশেষ গতমাসের শেষের দিকে প্রেসক্লাবের সাবেক সহ-সভাপতি বাদল কুমার সাহা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়। তার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে ক্লাবের সাধারন সম্পাদক তাকে জেলা হাসপাতালে ভর্তি করার পর উন্নত চিকিসার জন্য তাকে ঢাকায় প্রেরন করার অগ্রণী ভুমিকা পালন করেন।
গত ১১ জুলাই জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে মিটিং চলাকালে অসুস্থ বোধ করেন প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক।  বাসায় ফেরার পর জ্বর ঠান্ডা ও কাসিসহ নানা উপসর্গ দেখা দেয়। পরে করোনা টেষ্ট করানোর পর ১৪ই জুলাই ফলাফল পজেটিভ আসে। এরই মধ্যে শ্বাস কষ্ট ,রক্ত বমি সহ নানা উপসর্গে একেবারে শয্যাসয়ী হয়ে যান।
এই অবস্থায় জেলা প্রশাসন পুলিশ ও সাংবাদিক সমাজে বাড়ে শঙ্কা ও উৎকণ্ঠা। সবাই পাশে দাড়ায় এই কলম যেদ্ধার। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে নিজের ওয়ালে আবেগ ঘন এক পোষ্ট দেন তিনি। মোঃ মাজহারুল পারভেজ মন্টি’র ফেইসবুক ওয়াল থেকে নেয়া একটি পোষ্ট হু-বু-হু তোলে ধরা হলো। হে মহান সৃষ্টিকর্তা তুমি এই বিশ্বব্রহ্মান্ডের মালিক। তুমি সকলকে হেফাজত করো। যারা তোমার বান্দাকে ভালোবাসে,তারা তোমাকেও ভালোবাসে। তুমি তাদের সকলকে হেফাজত করো। তোমার যে বান্দা, মানুষের বিপদের সময় পাশে দাঁড়ায়,তাকে তুমি আরো বেশি বেশি করে দাঁড়ানোর সক্ষমতা প্রদান করো। পৃথিবীর সর্বত্র শান্তি বিরাজ করো। হানাহানি রাহাজানি দুর করে এ পৃথিবীকে ভাতৃত্বের বন্ধনে বসবাস করার উপযোগী করো। এ পৃথিবী থেকে সকল অন্ধকার দূর করে আলোর পথে চলার তৌফিক দান করো, আমীন।

এই বিভাগের আরো খবর