counter রুটি দূরের কথা, আটা স্পর্শ করা যাচ্ছে না পাকিস্তানে

শনিবার, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রুটি দূরের কথা, আটা স্পর্শ করা যাচ্ছে না পাকিস্তানে

  • 5
    Shares

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : গম চাষে পাকিস্তানের বেশ নাম রয়েছে। সে দেশে এমন দুরাবস্থা! পাকিস্তানে এখন আটার দাম আকাশছোঁয়া। নিজের দেশে কালোবাজারির জন্য পাকিস্তান সরকার বিদেশ থেকে আটা আমদানি করতে বাধ্য হচ্ছে।

পাকিস্তানের প্রথম সারির সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, তাদের দেশে এখন এক কেজি আটার দাম ৫৪ টাকা। তবে এটা করাচির বিভিন্ন বাজারের দাম। পাঞ্জাবসহ অন্য প্রদেশে এক কেজি আটা ৬০-৬৫ টাকাতেও বিক্রি হচ্ছে।

করোনাভাইরাস মহামারি আকারে ছড়িয়ে যাওয়ার আগে থেকেই পাকিস্তানে আর্থিক মন্দা চলছে। সে দেশের বহু মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে বসবাস করছেন। বেকারত্ব বেড়েছে রেকর্ড হারে।

তার ওপর করোনার প্রকোপে পাকিস্তানের অর্থনীতির বেহাল অবস্থা। এ পরিস্থিতিতে আটার দাম বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠে গেছে। পাকিস্তানে এখন রুটি সাধারণ মানুষের কাছে যেন উপরতলার মানুষের খাবার হয়ে গেছে।

পরিস্থিতি এতটাই গুরুতর যে, সরকার মন্ত্রীসভার বৈঠক ডাকতে বাধ্য হয়েছে। পাকিস্তানের সরকার আপাতত অন্য দেশ থেকে গম আমদানি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। চলতি বছরের এপ্রিল থেকে এখন পর্যন্ত সে দেশে আটার দাম বেড়েছে ১৯ টাকা।

পাকিস্তানের কোনো কোনো জায়গায় আটার দাম বেড়েছে আরো বেশি। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, গমের ফলন কম হয়নি। তার পরেও দাম এমন আকাশছোঁয়া কেন! এর পেছনে দায়ি কালোবাজারি। সরকার কালোবাজারিদের রুখতে আইন করেছে। তাতেও লাভ হচ্ছে না। আপাতত রাশিয়া ও ইউক্রেন থেকে গম আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান।

এই বিভাগের আরো খবর