counter বিশ্বে আবারও একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ

বৃহস্পতিবার, ১লা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বিশ্বে আবারও একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ

  • 30
    Shares

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মাত্র তিন দিনের মাথায় আবারও একদিনে সর্বোচ্চ সংক্রমণ দেখল বিশ্ব। গত ২৪ ঘণ্টায় দুই লাখ ৮৯ হাজারের বেশি মানুষের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর আগে ২ লাখ প্রায় ৮০ হাজারের রেকর্ড সংক্রমণ ঘটেছিল। যার অধিকাংশই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকার নাগরিক।

বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডমিটারের নিয়মিত পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে, গত একদিনে বিশ্বের ২ লাখ ৮৯ হাজার ২৮ জনের দেহে মিলেছে করোনার সংক্রমণ। এতে করে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১ কোটি ৫৯ লাখ ৩১ হাজার ৪৪৫ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণ ঝরেছে আরও ৬ হাজার ১৯৯ জনের। এতে মৃতের সংখ্যা ৬ লাখ ৪১ হাজার ৮৮৫ জনে ঠেকেছে।

তবে, আশার কথা হলো, গত ২৪ ঘণ্টায়ও প্রায় ১ লাখ ৮৭ হাজার ভুক্তভোগী সুস্থ হয়েছে। যদিও আক্রান্তের তুলনায় তা অর্ধেক। এতে করে মোট বেঁচে ফেরার সংখ্যা ৯৭ লাখ ১৭ হাজারে পৌঁছেছে।

এর মধ্যে ইউরোপের কয়েকটি দেশ ও উৎপত্তিস্থল চীনে নিয়ন্ত্রণে ভাইরাসটি। তবে দেশগুলো স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরলেও মুক্ত হচ্ছে না পুরোপুরি। এখনও প্রতিদিনই কমবেশি সংক্রমণ ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটছে।

করোনায় ভুক্তভোগীদের মধ্যে সবার উপরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ৪২ লাখ ৪৮ হাজারে দাঁড়িয়েছে। না ফেরার দেশে ১ লাখ ৪৮ হাজার ৪৯০ জন মানুষ।

ব্রাজিলে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ২৩ লাখ ৪৮ হাজার ২শ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণহানি ৮৫ হাজার ৩৮৫ জনে ঠেকেছে।

সংক্রমণে তিনে থাকা দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারতে গত একদিনেই ৪৯ হাজার মানুষের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এতে করে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ৩৭ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। প্রাণহানি ঘটেছে ৩১ হাজার ৪০৬ জনের।

রাশিয়ায় সংক্রমিতের সংখ্যা ৮ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশটিতে এখন পর্যন্ত ১৩ হাজার ৪৬ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে করোনায়।

আফ্রিকার দেশ দক্ষিণ আফ্রিকায় সংক্রমিতের সংখ্যা চার লাখ পেরিয়েছে। এখন পর্যন্ত সেখানে ৪ লাখ ২২ হাজার জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৩৪৩ জনের।

উত্তর আমেরিকার দেশ মেক্সিকোয় আক্রান্ত ৩ লাখ ৭৮ হাজার পেরিয়েছে। প্রাণ গেছে ৪২ হাজার ৬৪৫ জন মানুষের।

লাতিন আমেরিকার আরেক দেশ পেরুতেও আক্রান্ত ৩ লাখ সাড়ে সাড়ে ৭৬ হাজার। যেখানে মৃতের সংখ্যা ১৭ হাজার ৮৪৩ জন।

চিলিতে সংক্রমণ ৩ লাখ ৩১ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে ৮ হাজার ৯১৪ জনের প্রাণ কেড়েছে করোনা।

নিয়ন্ত্রণে আসা স্পেনে আবারও ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে করোনা। প্রাণহানি কম হলেও সংক্রমণ পুনরায় বিস্তার লাভ করছে। গত ২৪ ঘণ্টায়ও সেখানে ২ হাজার ২২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। ফলে ইউরোপের দেশটিতে আক্রান্ত বেড়ে ৩ লাখ ১৯ হাজার ৫০১ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রাণ গেছে সেখানে ২৮ হাজার ৪৩২ জনের। এর মধ্যে গত একদিনে মারা গেছেন তিনজন।

যুক্তরাজ্যে সংক্রমিতের সংখ্যা ২ লাখ ৯৮ হাজার ছুঁই ছুঁই। যেখানে মৃত্যু হয়েছে ৪৫ হাজার ৬৭৭ জনের।

মধ্যপ্রাচ্যের ইসলামী প্রজাতান্ত্রিক দেশ ইরানে করোনার শিকার ২ লাখ ৮৬ হাজারের বেশি মানুষ। প্রাণহানি ঘটেছে ১৫ হাজার ২৮৯ জনের।

দক্ষিণ এশিয়ার দেশ পাকিস্তানে করোনার শিকার ২ লাখ ৭০ হাজারের অধিক। মৃত্যু হয়েছে ৫ হাজার ৭৬৩ জনের।

সৌদি আরবে এখন পর্যন্ত করোনা রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ৬৩ হাজারের কাছাকাছি। এর মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ২ হাজার ৬৭২ জন।

ইতালিতে ২ লাখ ৪৫ হাজারের বেশি করোনার ভুক্তভোগী। এর মধ্যে পৃথিবী ছেড়েছেন ৩৫ হাজার ৯৭ জন।

কলম্বিয়ায় শনাক্ত হয়েছে ২ লাখ ৩৩ হাজারের বেশি রোগী। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৭ হাজার ৯৭৫ জনের।

তুরস্কে করোনার ভুক্তভোগী ২ লাখ সাড়ে ২৪ হাজার মানুষ। যেখানে প্রাণহানি ঘটেছে ৫ হাজার ৫৮০ জনের।

আর বাংলাদেশে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দেয়া তথ্যমতে, গতকাল শুক্রবার পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ১৮ হাজার ৬৫৮ জন। এর মধ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ২ হাজার ৮৩৬ জনের। আর সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন ১ লাখ ২০ হাজার ৯৭৬ জন ভুক্তভোগী।

এই বিভাগের আরো খবর