counter বাগমারায় পরকীয়ার জের ধরে স্ত্রী-সন্তানকে নির্যাতন ও হত্যার হুমকি

সোমবার, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বাগমারায় পরকীয়ার জের ধরে স্ত্রী-সন্তানকে নির্যাতন ও হত্যার হুমকি

  • 2
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর বাগমারায় নারী ও শিশু নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে । মামলা সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী তাসলিমা আলম তার স্বামী খোরশেদ আলী সরদার এর সাথে বাগমারা উপজেলার হাসনীপুর গ্রামে ১৯ বছর যাবৎ সংসার করে আসছিলেন, তাদের দুইটি সন্তান আছে। কিন্তু তার স্বামী খোরশেদ আলী সরদারের একাধিক মেয়ের সাথে পরকিয়ার অভিযোগ আছে আর সেই জের ধরেই তার স্ত্রী তাসলিমা ও তার বড় মেয়ে তাবাসসুম আক্তার তিথীলাকে মাঝে মধ্যেই মারধর করে শারীরিকভাবে নির্যাতন করে ও হত্যার হুমকি দেয় ।

ভুক্তভোগি তাসলিমা বলেন, আমি ১৯ বছর যাবৎ সংসার করছি, আমার দুই সন্তান আছে তাদের ভবিষ্যৎ দিক চেয়ে অনেক নির্যাতন সহ্য করেছি আমাকে শারীরিক ভাবে অনেক মারধর করতো অন্য মেয়ের সাথে পরকিয়ার বাঁধা দেয়ার জন্য । আমার স্বামী একাধিক মেয়ের সাথে পরকিয়া করে এমন কি গ্রামের এক মেয়ের সাথে গ্রাম্য সালিশ বসে ও মিমাংসা হয়। পরে আবারও অন্য মেয়ের সাথে পরকিয়া করে আর আমি তাকে এসব বিষয়ে কোন কথা বললে মারধর করে, যৌতুক দাবি করে ও হত্যার হুমকি দেয় ও ডিভোর্স দিতে চাই। চলতি বছরের ৩১ জানুয়ারির রাতে আমাকে আমার স্বামী বলে আমার পিতার কাছ থেকে পাঁচ লক্ষ টাকা নিয়ে আসার জন্য আামি টাকা নিয়ে আসতে না চাইলে বেধড়ক পেটাই ও আমার শরীর জখমসহ গলাটিপে ধরে শ্বাসরোধ করার চেষ্টা করলে আমার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা রক্ষা করে ও আমার অবস্থা খারাপ দেখে বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়। তারপর আমি সুস্থ্য হয়ে আমার নিরাপত্তার জন্য বাগমারা থানায় এজাহার দায়ের করি। তারপর থেকেই আমার স্বামী খোরশেদ , আমার শশুর শহিদ সরদার উঠে পড়ে লাগে মামলা তুলে নেওয়ার জন্য আমাকে হত্যার হুমকি ধামকি দেয়।

ভুক্তভোগী তাসলিমার মেয়ে তাবাসসুম আক্তার তিথীলা বলেন, আমার বাবা একজন চরিত্রহীন আমার বাবা অনেক মেয়ের সাথে রিলেশন করে আমার বাবার ফোনে ফোন আসলে আমি রিসিভ করলে আমাকে মারধর করে এমনকি আমাকে হত্যা করতে চায়। আমার বাবার বিপক্ষে বললে আমার দাদার জামাতা ভুলু বাসায় এসে রুমে আটকে রেখে মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেয় । বর্তমানে আমি আমার মায়ের সাথে থাকি আর আমার মায়ের সাথে থাকার কারনে আমার ফুফা ভুলু আমাকে নানান ভাবে হুমকি ধামকি দিচ্ছে।

এবিষয়ে অভিযুক্ত খোরশেদ আলী সরদার বলেন, আমার বিরুদ্ধে আমার স্ত্রী তাসলিমা মামলা দায়ের করেছেন। মামলাটি প্রক্রিয়াধীন অবস্থায় রয়েছে। আইন অনুসারে যে স্বীদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে তা আমি মেনে নিবো।

এই বিভাগের আরো খবর