counter দাউদ ইব্রাহিমকে নাগরিকত্ব দেয়া হয়নি, দাবি ডমিনিকার

মঙ্গলবার, ২৭শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, ১১ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দাউদ ইব্রাহিমকে নাগরিকত্ব দেয়া হয়নি, দাবি ডমিনিকার

  • 1
    Share

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বলে ফেলেও শেষমেশ দাউদ করাচিতে রয়েছে, সে কথা অস্বীকার করে পাকিস্তান। এ বার দাউদকে নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা অস্বীকার করল ক্যারিবিয়ান দেশ ডমিনিকাও। তাদের দাবি, দাউদ ইব্রাহিম কমনওয়েলথ অব ডমিনিকার নাগরিক নন। কোনও কালেই নাগরিকত্ব দেয়া হয়নি তাকে।
সম্প্রতি ইসলামাবাদের পক্ষ থেকে প্রকাশিত একটি বিজ্ঞপ্তিতে করাচির ঠিকানাসহ দাউদের নাম উঠে আসে। সন্ত্রাসে মদত জোগানো নিয়ে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা এড়াতে ইসলামাবাদ দাউদের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে শোনা যায়। সেই তথ্য অস্বীকার করে ইসলামাবাদ।

এরপর একাধিক ভারতীয় নিরাপত্তা সংস্থার রিপোর্টে বলা হয়, বিভিন্ন নামে ভারত, পাকিস্তান, দুবাই এবং কমনওয়েলথ অব ডমিনিকার পাসপোর্ট জোগাড় করেছে দাউদ।

ডমিনিকায় বিশেষ ইকনমিক সিটিজেনশিপ প্রোগ্রাম (ইসিপি) রয়েছে, যার মাধ্যমে সে দেশের অর্থনীতিতে মোটা অঙ্কের বিনিয়োগ করলে নাগরিকত্ব পাওয়া যায়। অভিযোগ, তার মাধ্যমেই সে দেশের পাসপোর্ট জোগাড় করেছে দাউদ।

কিন্তু ভারতীয় নিরাপত্তা সংস্থাগুলির এই দাবি খারিজ করে দেয় ডমিনিকার সরকার। একটি বিবৃতি প্রকাশ করে বলা হয়, ‘দাউদ ইব্রাহিম কাসকর কমনওয়েলথ অব ডমিনিকার নাগরিক নন। কোনও কালেই এ দেশের নাগরিক ছিলেন না তিনি। আর্থিক বিনিয়োগ বা অন্য কোনও উপায়েও নাগরিকত্ব দেওয়া হয়নি তাঁকে। এ নিয়ে সংবাদমাধ্যম বা কোনও ব্যক্তি যদি এমন কোনও দাবি করে থাকেন, তা সর্বৈব মিথ্যা।’

সেই সঙ্গে ডমিনিকা সরকার আরও জানিয়েছে, দেশের মানুষের নিরাপত্তা রক্ষার্থে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ তারা। তাই বিনিয়োগ প্রকল্পের মাধ্যমে নাগরিকত্ব পেতে গেলেও বেশ কিছু প্রক্রিয়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হয় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রিটেনের বিভিন্ন সংস্থা তার সম্পর্কে তথ্য জোগাড় করে। ওই সমস্ত সংস্থার রিপোর্টে যদি সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি দেশের জন্য বিপজ্জনক বলে গণ্য না হন, তবেই তাকে নাগরিকত্ব দেয়া হয়।

১৯৯৩-এ মুম্বাই ধারাবাহিক বিস্ফোরণে ২৫৭ জন প্রাণ হারান। জখম হন ৭০০-র বেশি মানুষ। সেই বিস্ফোরণের মূল চক্র ছিল দাউদ ইব্রাহিম।

গতকয়েক দশক ধরে ভারতে ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’-এর তালিকায় তার নাম রয়েছে। পাকিস্তানে দাউদ নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছে বলে দীর্ঘ দিন ধরেই অভিযোগ করে আসছে দিল্লি। কিন্তু বরাবর তা অস্বীকার করে আসছে ইসলামাবাদ।

এই বিভাগের আরো খবর