counter জেনে নিন বদহজম দূর করার সহজ উপায়ে।

বৃহস্পতিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

জেনে নিন বদহজম দূর করার সহজ উপায়ে।

  • 7
    Shares

হজমের সমস্যা একটি সাধারণ সমস্যা। অনেক সময় ফ্যাট ও কার্বোহাইড্রেটপূর্ণ খাবার গ্রহণের ফলে হজমপ্রক্রিয়ায় ত্রুটি দেখা দেয়। কোষ্ঠকাঠিন্য বা এসিডিটির মতো গ্যাস্ট্রোইনটেসটিনাল সমস্যায় ভুগতে হয়। হজম নিয়ে যারা অসুবিধায় আছেন, তাদের জন্য সোয়ারইয়োগের উপকারিতা তুলে ধরেছেন বিশেষজ্ঞরা। সোয়ারইয়োগ মূলত শ্বাস-প্রশ্বাস নিয়ে কাজ করে।

বদহজম দূর করতে এই পরামর্শগুলো মেনে চলুন-

বাঁ কাত হয়ে শোয়া :

সোয়ারইয়োগের মতে, দুপুরে খাওয়ার পর যদি একটু ঝিমিয়ে নিতে চান, তবে প্রথমেই বাঁ পাশে কাত হয়ে শোবেন। এ অবস্থায় ১০ মিনিট বিশ্রাম নিন। হজমপ্রক্রিয়া কিছুটা স্থিতাবস্থায় আসবে। রাতেও বাঁ কাত হয়ে ঘুমানোর পরামর্শ দেয় এ বিজ্ঞান। ডান নাসারন্ধ্রের বিশেষ ব্যবহারকে দীর্ঘায়িত করতে এভাবেই শুতে হয়। আর তাতে হজম সুষ্ঠু হয়।

মসলা ও তৈলাক্ত খাবার :

এ জাতীয় খাবারে দেহে এসিড উৎপন্ন হয়। তাই এসব খাবার গ্রহণের আগে অবশ্যই ডান নাসারন্ধ্রকে কার্যকর করার পরামর্শ দেয় সোয়ারইয়োগ। বাম নাসারন্ধ্র বন্ধ করে অন্যটি দিয়ে টানা দুই-তিন মিনিট শ্বাস নিলে ডান নাসারন্ধ্র চালু হয়ে যাবে। এরপর বাম নাসারন্ধ্রটি ছেড়ে দিন। এবার খাবার খেলে দ্রুত হজম হয়ে যাবে। আবার মিষ্টি বা ঠাণ্ডাজাতীয় খাবার খাওয়ার আগে বাম নাসারন্ধ্র কার্যকর করে নিতে হবে। আগের মতোই কাজটি সম্পন্ন করুন।

সটান হয়ে শুয়ে পড়ুন :

ছোট-বড় অনেকেই সকালে ঘুম থেকে উঠেই মিষ্টি খাবার খান। এ অভ্যাস অবশ্যই বর্জনীয় বলে মনে করে সোয়ারইয়োগ বিজ্ঞান। এর পরও মিষ্টি খাবার হজম করাতে চাইলে সমতল স্থানে সটান শুয়ে পড়ুন। এবার গভীর শ্বাস নিন একটানা আটবার। এবার ডান কাত হয়ে শুয়ে পড়ুন এবং ১৬ বার শ্বাস নিন। এরপর বাঁ কাত হয়ে ৩২ বার শ্বাস নিন। এতে হজমপ্রক্রিয়া শক্তিশালী হবে।

এই বিভাগের আরো খবর