counter জেনে নিন টুথপেস্ট টিউবের নিচের রঙিন চিহ্ন যা নির্দেশ করে।

মঙ্গলবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জেনে নিন টুথপেস্ট টিউবের নিচের রঙিন চিহ্ন যা নির্দেশ করে।

  • 12
    Shares

দাঁত ঝকঝকে রাখতে টুথপেস্ট দিয়ে ব্রাশ তো করবেনই। মুখের গন্ধ দূর করতেও রোজ সকালে চাই টুথপেস্ট। কেননা দাঁত ও মুখ পরিষ্কার রাখার অন্যতম স্বাস্থ্যকর উপায় টুথপেস্ট দিয়ে দাঁত ব্রাশ করা। কিন্তু কখনো কি টুথপেস্ট টিউবের নিচের অংশে কিউব আকৃতির রঙিন ট্যাবের উপস্থিতি টের পেয়েছেন?

হয়তো দেখেছেন, কিন্তু পেস্টভেদে সবুজ, নীল, লাল, কালো রঙের এই ছোট্ট বাক্সটিকে নিয়ে ভাবেননি। কিন্তু এই রঙগুলোর আছে আলাদা এক অর্থ। পেস্টভেদে থাকা এই রঙগুলো ওই পেস্টটি কি উপাদান দিয়ে তৈরি তা ইঙ্গিত করে।

সবুজ :

সব উপাদান প্রাকৃতিক (এই টুথপেস্ট তৈরি করতে সব প্রাকৃতিক উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে)

নীল :

কিছু উপাদান প্রাকৃতিক ও কিছু মেডিসিন (এই টুথপেস্ট তৈরি করতে কিছু প্রাকৃতিক উপাদান ও কিছু মেডিসিন ব্যবহার করা হয়েছে)

লাল :

কিছু উপাদান প্রাকৃতিক ও কিছু রাসায়নিক দ্রব্য (এই টুথপেস্ট তৈরি করতে কিছু প্রাকৃতিক উপাদান ও কিছু রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করা হয়েছে)।

কালো :

সব উপাদান রাসায়নিক দ্রব্য (এই টুথপেস্ট তৈরি করতে সব রাসায়নিক দ্রব্য ব্যবহার করা হয়েছে)।

মূলত এই রং পণ্যটিকে প্যাকেটজাত করার সময় কাজে লাগে। কারণ স্ক্যানারের মাধ্যমে রং দেখে সেই অনুযায়ী ভাগ করে প্যাকেটে ভরা হয়। তবে এই রং দেখে উপকৃত হতে পারেন ক্রেতারাও। এবার আপনিই সিদ্ধান্ত নিন এখন থেকে কোন রঙের টুথপেস্ট আপনি বেছে নেবেন।

টুথপেস্ট, সাবান এমনকি প্লাস্টিকের খেলনার রাসায়নিক উপাদান পুরুষের সন্তান উৎপাদন ক্ষমতাকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে। ডেনমার্কের হসপিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক নেইলস শেকাকেবার্কের পরিচালিত এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

গবেষণার ফলাফল প্রকাশিত হয় ব্রিটিশ দৈনিক ইন্ডিপেনডেন্টে। গবেষণায় দেখা গেছে, টুথপেস্ট, সাবান এমনকি প্লাস্টিকের খেলনার মত নিত্যপণ্যে কিছু রাসায়নিক উপাদান রয়েছে যা শুক্রাণুর শক্তি হ্রাস করে; বদলে দেয় সাঁতার কাটার আচরণ। নারীর ডিম্বকোষে ঢোকার জন্য এক ধরণের এনজাইমের নিঃসরণ ঘটায় পুরুষ শুক্রাণু। কিন্তু এভাবে আচরণ বদলে যাওয়ায় নির্ধারিত সময়ের আগেই এ এনজাইমের নিঃসরণ ঘটায় এবং ডিম্বে ঢুকতে ব্যর্থ হয় এ সব শুক্রাণু।

উল্লেখ্য ‘দাঁতের আমি দাঁতের তুমি’র বাইরেও টুথপেস্ট গৃহস্থালির অনেক টুকিটাকি সমস্যার মুশকিল আসান করে।

১. রুপোর আংটি বা গয়না জৌলুস হারিয়ে কালচে কালচে হয়ে গিয়েছে? পুরনো বাতিল ব্রাশের ডগায় কিছুটা টুথপেস্ট নিয়ে ভালো করে ঘষে নিন। এরপর ধুয়ে নিলেই ঝকঝকে হয়ে যাবে। পালিস করানোর প্রয়োজন পড়বে না।

২. টুথপেস্ট দিয়ে গাড়ির হেডলাইটের কাচও সহজে পরিষ্কার করতে পারেন। নতুনের মতো জেল্লা দেবে।

৩. হারমোনিয়ামের রিডের নোংরা পরিষ্কার করতেও টুথপেস্ট ব্যবহার করতে পারেন। একটা ভেজা কাপড়ের টুকরোয় সামান্য পরিমাণ টুথপেস্ট নিয়ে হালকা করে ঘষুণ। সব দাগ বা নোংরা পরিষ্কার হয়ে যাবে।

৪. কাঠের টেবিল বা অন্য কোনও আসবাবে দাগ লাগলে নিমেষে পরিষ্কার করে ফেলতে পারেন। এর জন্য কোনও ক্ষতিকারক ব্লিচিংয়ের দরকার নেই। ছোপ তুলতে টুথপেস্টই যথেষ্ট। কিছুক্ষণ লাগিয়ে রেখে একটু জোরে ঘষলেই উঠে যাবে।

৫. জামায় কোনও ভাবে লিপস্টিকের দাগ লেগে গেছে? বা বোতল উলটে সস পড়ে সাদা টেবল ক্লথে দাগ লেগে গেছে? মুশকিল আসান রয়েছে আপনার হাতের কাছেই। সাতপাঁচ না-ভেবে টুথপেস্ট লাগিয়ে ঘষে নিন। দাগ গায়েব।

৬. স্মার্টফোনের স্ক্রিনে প্রোটেক্টিভ ফিল্ম লাগানো নেই? ঘষায় দাগ লেগেছে? কাপড়ের টুকরোয় অল্প টুথপেস্ট নিয়ে স্ক্র্যাচের উপর আলতো করে ঘষুণ। আশপাশে লেগে থাকা টুথপেস্ট মুছে শুকিয়ে নিন। দাগ থাকবে না।

৭. নখে লেগে থাকা দাগ তুলতে চান? টুথপেস্ট লাগিয়ে ঘষে ধুয়ে ফেলুন।

৮. বেসিন বা বাথরুমের স্টিলের কল অনেক দিন পরিষ্কার করেননি? বা নিয়মিত পরিষ্কার করলেও ছোপ ছোপ দাগ রয়েছে বলে মনে হচ্ছে? চিন্তা না-করে মাজন লাগিয়ে একটু জোরে ঘষে নিন। ঝকঝকে দেখাবে।

৯. আয়রনের নীচের দাগ বা মরচে তুলতে টুথপেস্ট ঘষুন। পরিষ্কার হয়ে যাবে।

১০. মাছের আঁশটে গন্ধ কিংবা রসুন বা পেঁয়াজের গন্ধ হাতে লেগে আছে। অস্বস্তি লাগছে? কিছুটা টুথপেস্টে হাতে ঘষে ধুয়ে নিন। গন্ধ গায়েব।

এই বিভাগের আরো খবর